Web Page Titled
ঠিকানাঃ আবিদ প্লাজা, দাউদকান্দি বিশ্বরোড, উপজেলা: দাউদকান্দি, জেলা: কুমিল্লা-৩৫১৬। ভর্তি সংক্রান্ত তথ্য ও বিস্তারিত জানতে অনুগ্রহপূর্বক এই নম্বরে যোগাযোগ করুনঃ +88 01328-911988    ২০২৪ শিক্ষাবর্ষে প্লে গ্রুপ থেকে অষ্ঠম শ্রেণি পর্যন্ত বাংলা ও ইংলিশ ভার্সনে ভর্তি চলছে।

প্রতিষ্ঠাতা মহোদয়ের বাণী

MJ Sir

আমরা সবাই জানি যে আমাদের প্রিয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা দেশকে ২০৪১ সালে উন্নত সমৃদ্ধ স্মার্ট বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠার প্রত্যয় ঘোষণা করেছেন। আমরা ডিজিটাল প্রযুক্তি ব্যবহার করে ২০৪১ সালের মধ্যে একটি উন্নত সমৃদ্ধ স্মার্ট বাংলাদেশ গড়তে চাই। আজ বাংলাদেশ স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উন্নয়নশীল দেশে পদার্পন করেছে এবং উন্নত দেশে পদার্পণের লক্ষ্যমাত্রা অর্জন করতে হলে প্রচলিত শিক্ষার শুধুমাত্র পরিবর্তন নয়; প্রয়োজন শিক্ষার রূপান্তর।

 

স্মার্ট বাংলাদেশ গড়ার মূল ভিত্তি হচ্ছে প্রযুক্তিনির্ভর ডিজিটাল শিক্ষাব্যবস্থা। দুর্ভাগ্যজনক হলেও সত্য বিদ্যমান শিক্ষাব্যবস্থা ভবিষ্যৎ তো দূরের কথা বর্তমানেই আমাদের সন্তানকে যোগ্য করে তুলছে না। ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে আমি ১৯৯৯ সালের ২৪ ডিসেম্বর গাজীপুর জেলার ছায়াবিথীতে প্রথম আনন্দ মাল্টিমিডিয়া স্কুল প্রতিষ্ঠা করেছিলাম। যার ফলে আজ আমরা সমৃদ্ধ স্মার্ট বাংলাদেশ গড়ার স্বপ্ন দেখছি। 

 

আপনারা জেনে আনন্দিত হবেন যে, আনন্দ মাল্টিমিডিয়া স্কুল অ্যান্ড কলেজ শুরু থেকে প্রাক-প্রাথমিক ও প্রাথমিক স্তরের শিক্ষার্থীর জন্য জাতীয় শিক্ষাক্রমের পাশাপাশি নিজস্ব শিক্ষাক্রম ও বিজয় শিশু শিক্ষা সংযুক্ত করে প্রচলিত শিক্ষাব্যবস্থায় যুগান্তকারী পরিবর্তন এনেছে।

 

ইতোমধ্যে আনন্দ মাল্টিমিডিয়া স্কুল অ্যান্ড কলেজ ডিজিটাল শিক্ষা রূপান্তরের পথিকৃৎ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান হিসেবে সারাদেশে পরিচিতি লাভ করেছে। ১৯৯৯ সাল থেকে আনন্দ মাল্টিমিডিয়া স্কুল অ্যান্ড কলেজের মাধ্যমে ডিজিটাল শিক্ষা বিস্তার থাকলেও দাউদকান্দি উপজেলা কেন্দ্রিক ডিজিটাল শিক্ষার অপূর্ণতা রয়েছে। দাউদকান্দিবাসীর এই অপূর্ণতা পূরণে দীর্ঘ ২৪ বছর পেরিয়ে আমার স্নেহভাজন জনাব মোহাম্মদ আলাউদ্দিন দাউদকান্দিতে ডিজিটাল শিক্ষা বিস্তারে ২০২৪ শিক্ষাবর্ষে আনন্দ মাল্টিমিডিয়া স্কুল অ্যান্ড কলেজ প্রতিষ্ঠা করার অনুমতি চাইলে আমি তার উদ্যোগকে স্বাগত জানাই ও সাদরে গ্রহণ করি।

 

আমি আশা করি আমাদের এই নতুন উদ্যোগ আপনাদের সন্তানকে ডিজিটাল যুগের উপযোগী শিক্ষা প্রদান করে উন্নত সমৃদ্ধ স্মার্ট বাংলাদেশ গঠনে নেতৃত্ব দেবার যোগ্যতা ও দক্ষতা অর্জনে সাহায্য করবে ইনশাআল্লাহ।

 

 

 

ধন্যবাদান্তে-

মোস্তাফা জব্বার


দাউদকান্দিবাসীর ডিজিটাল শিক্ষা চাহিদা পূরণে আমার প্রচেষ্টা

Chairman Sir

প্রিয় দাউদকান্দিবাসী আপনারা জেনে আনন্দিত হবেন যে, বিশ্ব বরেণ্য তথ্যপ্রযুক্তিবিদ, বিজয় বাংলা সফট্ওয়্যার প্রণেতা, ডিজিটাল বাংলাদেশ শব্দের প্রবক্তা গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রণালয়ের মাননীয় মন্ত্রী জনাব মোস্তাফা জব্বার স্যারের স্বপ্নের আনন্দ মাল্টিমিডিয়া স্কুল অ্যান্ড কলেজ “এখন আপনার প্রিয় শহর দাউদকান্দিতে”। মাননীয় মন্ত্রী দাউদকান্দি পৌর কেন্দ্রিক আনন্দ মাল্টিমিডিয়া স্কুল অ্যান্ড কলেজ প্রতিষ্ঠা করার সুযোগ করে দেওয়ার জন্য মন্ত্রী মহোদয়ের প্রতি আন্তরিক ভাবে কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করছি।

 

আমাদের প্রিয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা’র ঘোষিত “স্মার্ট বাংলাদেশ” গঠন ও মাননীয় মন্ত্রী জনাব মোস্তাফা জব্বার স্যারের স্বপ্ন “ডিজিটাল শিক্ষা” বাস্তবায়ন; দাউদকান্দিবাসীর শিক্ষা চাহিদা “প্রযুক্তিনির্ভর বাংলা ও ইংরেজি ভার্শনে ডিজিটাল শিক্ষা”পূরণে ২০২৪ শিক্ষাবর্ষে দাউদকান্দিতে আনন্দ মাল্টিমিডিয়া স্কুল অ্যান্ড কলেজ প্রতিষ্ঠা করার উদ্যোগ গ্রহণ করি। আমি আশাকরি দাউদকান্দিবাসী এই উদ্যোগকে স্বাগত জানাবেন এবং বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থী ভর্তির ক্ষেত্রে সকলে সর্বাত্মক সহযোগিতা করবেন।

 

আপনারা সকলেই অবগত আছেন যে, আমার কর্তৃক প্রতিষ্ঠিত ও পরিচালিত গৌরীপুর আনন্দ মাল্টিমিডিয়া স্কুল অ্যান্ড কলেজ ইতোমধ্যে কুমিল্লা শিক্ষাবোর্ডের প্রথম সারির শিক্ষা প্রতিষ্ঠান হিসেবে পরিগণিত হয়েছে। গৌরীপুর শাখাটি ২০১৪ সাল থেকে ২০২২ সাল পর্যন্ত একাধারে ৯ বছর এসএসসি ফলাফলের ভিত্তিতে দাউদকান্দি উপজেলায় ১ম স্থান অর্জনের সাফল্য ধরে রেখেছে। আমার বিশ্বাস আনন্দ মাল্টিমিডিয়া স্কুল অ্যান্ড কলেজ “দাউদকান্দি শাখাটিও এর ব্যতিক্রম হবে না”।

 

আনন্দ মাল্টিমিডিয়া স্কুল অ্যান্ড কলেজ নতুন শিক্ষাপদ্ধতি সম্প্রসারণের লক্ষ্যে “Learning Today, Leading Tomorrow” স্লোগানে প্রতিনিয়তি এগিয়ে যাচ্ছে ভবিষ্যৎ প্রজন্ম তৈরিতে। আমি আশাবাদী আনন্দ মাল্টিমিডিয়া স্কুল অ্যান্ড কলেজ দাউদকান্দি শাখা তার কার্যক্রম সফল ভাবে বাস্তবায়ন করে আমাদের ভবিষ্যত প্রজন্মকে একবিংশ শতাব্দীর চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় যোগ্য নাগরিক হিসেবে দেশ-বিদেশে নেতৃত্ব দেওয়ার যোগ্য গড়ে তুলবে ইনশাআল্লাহ্।

 

ধন্যবাদান্তে-

মোহাম্মদ আলাউদ্দিন

চেয়ারম্যান